img

যেই ১০ টি কাজ করে আপনি অবসরে আয় করতে পারেন

/
/
/
37 Views

income opportunities when you are in retirement

চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পর পরিবারের প্রয়োজন এবং বৈবাহিক সমস্যার কারণে ষাটোর্ধ্ব মানুষকে চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পরও নিয়মিত আয়ের উৎস খুঁজতে হয়।

যারা দীর্ঘদিন ধরে চাকরী করে, এই চাকরির মাধ্যমে তাদের অনেকের সাথে যোগাযোগ থাকে। ফলে তারা যদি অবসর গ্রহণের পর কোন ব্যবসা করার চিন্তা ভাবনা করে তবে সেটা বিফলে যাবে নাহ। দীর্ঘদিন চাকরি করার কারণে অভিজ্ঞতা এবং বিশাল নেটওয়ার্কিং বেশ সাহায্য করে থাকে।

এদের মধ্যে যারা প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার করতে জানে, তারা ইচ্ছা করলেই অবসর থাকা কালীন সময়ে ও ভালো অঙ্কের টাকা আয় করতে পারে।

 

অবসর কালীন সময়ে অনেকে মানুষ অনেক রকমের কাজ করে থাকেন। কেউ কাজের মধ্য দিয়ে উপভোগ করে কেউ আবার তার পরিবার এর সাথে সময় কাটায়। যদি আপনি কাজে ফিরে যেতে চান তাহলে এমন কিছু কাজের খোজ করুন বা এমন কিছু কাজ করবেন যেই কাজের মধ্যে আপনি আনন্দ পাবেন। চলুন এমন ১০টি কাজের সাথে পরিচিত হয়ে আসি, যেগুলো অবসরপ্রাপ্ত চাকরিজীবীদের জন্য বেশ উপভোগ্য।

বাড়িতে বসে ব্যবসা

বয়স মানুষকে পিছিয়ে দেয় ফলে নানা ধরনের সমস্যায় ভুগতে হয়। এজন্য বাসায় বসে ব্যবসা করা অন্যতম একটি আয়ের উৎস।

এমন কিছু ব্যবসার চিন্তা ভাবনা করুন যা আপনাকে আনন্দ দেয় এবং আপনি সেটা উপভোগ করবেন। হতে পারে সেটা কোন খেলনার জিনিস বা কোন চিত্রকর্ম অথবা ঘরে তৈরি খাবার বিভিন্ন স্থানে যেমনঃ অফিস বা স্কুলে সরবরাহ আপনার বাবসার কাঠামো আরো শক্ত-পোক্ত করে নিতে পারেন। মনে করেন আপনার কোন সখ আছে যেমন,ধরা যাক বাগান করা আপনি চাইলে আপনার এই রকম শখকে লাভজনক ব্যবসায় রূপ দিতে পারেন।

কন্সাল্টিং সার্ভিস

চাকরির দীর্ঘ বছরের অভিজ্ঞতা আপনার কাজে দিবে। চাকরি জীবনের দীর্ঘ অভিজ্ঞতাকে অবসর জীবনে কাজে লাগাতে পারেন, পরামর্শ প্রদানের মাধ্যমে। কিছু মানুষ আছে যারা পরামর্শের জন্য অন্যদের কাছে গিয়ে থাকেন। কোন সমস্যার জন্য মানুষের কাছে পরামর্শ বা সমস্যা সমাধানের কিছু উপায় জানিয়ে আপনি ও আয় করতে পারেন। বিভিন্ন ডিজাইন করে, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট করে আপনি আয় করতে পারেন।

কনসালটেন্সির সাথে যুক্ত হলে খুব বেশি সময় ব্যয় করতে হবে না এবং কাজের চাপ অনেক কম। সেই সাথে এখানে সৃজনশীলতা এবং নিজস্ব ব্যক্তিস্বাধীনতা রয়েছে।

আত্মকর্মসংস্থানমূলক কাজ

অবসরের পর সবচেয়ে আকর্ষণীয় কাজ হচ্ছে আত্মনির্ভরশীলতামূলক কোনো কিছু করা। তবে আত্মকর্মসংস্থানমূলক কোনো কিছু করার জন্য আপনার সব সময়ের জন্য একজন কর্মচারী থাকতে হবে। যদি সেটা আপনার থাকে তাহলে নিজেই নিজের বস হতে পারবেন এবং চাকরিজীবনের অনেক বছরের অভিজ্ঞতাকে পুরোপুরি নিজের লাভের জন্য কাজে লাগাতে পারবেন। আত্মকর্মসংস্থানমূলক কাজের মধ্যে ছোট পরিসরে কোনো ব্যবসা অথবা কোনো দোকান দিতে পারেন, হতে পারে সেটা খেলার সামগ্রী বিক্রির দোকান, ফুলের দোকান কিংবা কোনো বইয়ের দোকান।

এটা নির্ভর করবে আপনার যে ধরনের অভিজ্ঞতা রয়েছে সেটার উপর। নিজস্ব ব্যবসা চালু করার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন সেটা নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দিতে পারেন, অথবা বিশ্বস্ত কোনো উৎস থেকে ধার নিতে পারেন, ব্যাংক ঋণ নিতে পারেন কিংবা সরকারি অনুদান নিতে পারেন।

বাসা বা সম্পত্তি ভাড়া দিয়ে আয়

বাসা বা সম্পত্তি ভাড়া দিয়ে অর্থ আয় করা সবচেয়ে সহজ এবং সবচেয়ে কম ঝামেলাপূর্ণ কাজ। যদি আপনার নিজস্ব কোনো বাসা, সম্পত্তি বা দোকান থাকে যেটা আপনি ব্যবহার করছেন না, সেটা অন্যের কাছে ভাড়া দিয়ে অর্থ আয় করতে পারেন। আপনি শুধু প্রতিমাসে একবার করে দেখাশোনা করে আসবেন। আবার ধরুন, আপনি বাসায় একা থাকেন। আপনার বাসায় আরো মানুষ থাকার মতো জায়গা আছে। তাহলে আপনি আপনার বাসায় অন্যকে সাবলেট হিসেবে নিতে পারেন। এতে করে অবসর জীবনে যেমন একজন সঙ্গী পাবেন, তেমনি অর্থও পাবেন।

নিজস্ব গাড়ি থেকে আয়

আপনি যদি ভালো ড্রাইভার হন বা গাড়ি চালাতে পারেন এক্ষেত্রে আপনি আপনার নিজস্ব গাড়ি দিয়েও আপনি আয় করতে পারেন। বর্তমানে সারা বিশ্বে উবার নামক একটি অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে কিছু ড্রাইভাররা গাড়ি চালিয়ে থাকেন এবং ভাল অঙ্কের টাকা আয় করে থাকেন। এরকম আরো অনেক অ্যাপ্লিকেশন আছে, যার মাধ্যমে আপনি চাইলে আয় করতে পারেন। তেমনিভাবে বাংলাদেশের রাইড শেয়ারিং এপ্লিকেশন পাঠাও এবং সহজ খুব বেশি জনপ্রিয়।

আবার মন চাইলে গাড়ী নিয়ে কোনো স্থানীয় পার্কে গিয়ে শরীরচর্চা করতে পারবেন কিংবা কখনো কখনো কোনো বন্ধুকে সাথে করে দূরে কোথাও ঘুরে আসতে পারেন।

প্রশিক্ষণ প্রদান বা শিক্ষকতা

চাকরি থেকে অবসরের পর শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে নেওয়া মন্দ নয়। শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে নেওয়া হলে বিভিন্ন দিক থেকে সুবিধা রয়েছে। শিক্ষকতার সাথে জড়িত হলে যেমন জ্ঞানচর্চার মধ্যে থাকতে পারবেন, তেমনি নিজের অভিজ্ঞতাকে অন্যের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে অর্থ আয়ও করতে পারবেন। আপনি হতে পারেন কোনো গানের শিক্ষক কিংবা হতে পারেন কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষক।

বর্তমান ইন্টারনেটের যুগে বাসায় বসে অনলাইনে বিভিন্ন বিষয় পড়ানোর মাধ্যমে সময় ব্যয়ের পাশাপাশি অর্থ আয় করতে পারেন। সেই সাথে বিভিন্ন খেলাধুলা এবং শরীরচর্চার প্রশিক্ষকও হতে পারেন। এতে করে আপনি যেমন ফিট থাকতে পারবেন, তেমনি অবসর সময়ও দারুণভাবে কেটে যাবে।

 

ট্যুর গাইড

অবসর জীবনে ট্যুর গাইডের মতো মজার কাজ সম্ভবত আর হতে পারে না। যদি স্বাস্থ্য বিভিন্ন স্থানে নিয়মিত ভ্রমণের উপযোগী হয়ে থাকে তাহলে ট্যুর গাইড হিসেবে কাজ করলে যেমন বিভিন্ন প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখতে পারবেন, সেই সাথে অর্থও আয় করতে পারবেন।

আরো একটি দারুণ বিষয় হচ্ছে নতুন নতুন মানুষের সাথে পরিচয়। ট্যুর গাইডের কাজের মাধ্যমে মন যেমন ফ্রেশ থাকে, তেমনি সময়ও কেটে যায় বেশ দারুণভাবে।

 

ফ্রিল্যান্সিং

বর্তমান সময়ে ফ্রিল্যান্সিংকে অনেক বেকার যুবক ক্যারিয়ার হিসেবে নিয়েছেন। কিন্তু অবসরপ্রাপ্ত চাকরিজীবী হিসেবে আপনার যেহেতু অগাধ সময় আছে, তাই ফ্রিল্যান্সিংকে আপনিও অর্থ আয়ের পথ হিসেবে নিতে পারেন। ফ্রিল্যান্সিং রাইটার হিসেবে অর্থ আয়ের সুযোগ যেমন রয়েছে তেমনি আরো অনেক কাজের সুযোগ রয়েছে অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে।

আপনি চাইলে কোনো ব্লগ তৈরি করে সেখানে নিয়মিত নিজের লেখা প্রকাশ করতে পারেন এবং নিজস্ব ব্লগ থেকে অর্থ আয় করতে পারেন। আবার ইবুক তৈরি করে অনলাইনে বিক্রি করেও অর্থ আয় করতে পারেন। আপনার মধ্যে যদি সৃজনশীলতা থাকে তাহলে ফ্রিল্যান্সিংয়ে বেশ ভালো করতে পারবেন।

অলাভজনক সংস্থার হয়ে কাজ

নিজের অবসর সময়কে ভালো পথে ব্যয় করে যদি মানসিকভাবে তৃপ্তি পেতে চান তাহলে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর সাথে জড়িত হতে পারেন এবং তাদের সাথে বিভিন্ন ক্যাম্পেইনে যোগ দিতে পারেন। অধিকাংশ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তাদের সদস্যদের বৃত্তি প্রদান করে থাকে। আপনি যদি উদ্যমী, নিবেদিত এবং যেকোনো পরিস্থিতির সাথে মানিয়ে চলতে পারেন তাহলে অবসর কাটানোর মতো সবচেয়ে উপভোগ্য কাজ হবে এটা।

দোকানে বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ

অবসর সময় কাটানোর জন্য স্থানীয় কোনো খুচরা পণ্যের দোকানে ক্যাশিয়ার কিংবা ম্যানেজারের চাকরি নিতে পারেন।

কাজ হিসেবে এটা বেশ সুবিধাজনক এবং সহজও বটে। এছাড়া বিক্রয়কর্মী হিসেবে বড় বড় চেইন শপগুলোতে দায়িত্ব পালন করতে পারেন।

শেষ কথা

আমরা এখানে ১০ টি পয়েন্ট লিখলাম, আপনার নতুন কোন অপশন জানা থাকলে কমেন্ট বক্সে লিখুন, আমরা মুল লিস্টে এড করে দিবো, পড়ার জন্য ধন্যবাদ। ভালো লাগলে ফ্রেন্ডসদের সাথে শেয়ার করুন।

 

এখনো আপনার মনে কোন প্রশ্ন আছে? অথবা আমাদের থেকে কল পেতে চান?

তাহলে নিচের ফরমটি পুরন করুন, আমরা আপনার সাথে যোগাযোগ করবো, ইংশাআল্লাহ! আপনি আমাদেরকে ০১৭১৬ ৯৮৮ ৯৫৩ / ০১৯১২ ৯৬৬ ৪৪৮ এই নাম্বারে কল করতে পারেন, অথবা ইমেল করতে পারেন hi@mahbubosmane.com এই ইমেলে, আমরা আপনাকে কোনভাবে সাহায্য করতে পারলে খুশি হব, ধন্যবাদ ।

মাহবুবওসমানী.কম এর সার্ভিস সমূহঃ

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Reply

It is main inner container footer text