img

একটি সফল ক্যারিয়ার গড়ার ৮ কৌশল!

/
/
/
423 Views

একটি সফল ক্যারিয়ার গড়ার ৮ কৌশল (পড়ার সময়ঃ ৭ মিনিট)

Successful Career

 

একটি সফল ক্যারিয়ার আপনাকে প্রচুর সুবিধা এবং আসল লাভজনক সুযোগ প্রদান করে। আমরা যেহেতু এমন এক বিশ্বে বাস করি যা সামাজিক মর্যাদা এবং অর্থ দ্বারা পরিচালিত, তাহলে শীর্ষে পৌঁছে যাওয়ার জন্য পদক্ষেপগুলো অবশ্যই আপনার জীবনযাত্রার মান উন্নত করবে। এমন অনেকগুলি সম্ভাব্য কারণ রয়েছে যার জন্য কোনও ব্যক্তি সাফল্যের আকাঙ্ক্ষা করে।

আমি মনে করি এর একটি কারণ হল সম্ভবত আপনার পেশাগত জীবনের সফলতা আপনার নিজেকে অন্য মানুষের তুলনায় ভালো বোধ করার শক্তি যোগায়। এটি আপনাকে সুরক্ষা এবং সাফল্যের অনুভূতি দেয়। অনেক লোক যারা শূন্য থেকে সফল ক্যারিয়ারে গিয়েছিলেন তারা জানিয়েছেন যে তাদের জীবন প্রায় সব দিক থেকেই উন্নত হয়েছিল।

কিছু নির্দিষ্ট অভ্যাস এবং পদক্ষেপ রয়েছে যা সারা বিশ্বের সফল লোকেরা করে থাকে। সাফল্যের কাছে যাওয়ার সর্বোত্তম উপায় হল পেশাদাররা কী কৌশলগুলি ব্যবহার করে তা অনুসরণ করা এবং তা আপনার প্রয়োজন অনুসারে তৈরি করে ফেলা।

নিম্নের আটটি কার্যকরী কৌশল আপনাকে আপনার ক্যারিয়ারের উন্নতি করতে যথেষ্ট সাহায্য করবে।

 

১) আপনার নিজের প্রতি বিশ্বাস:

সর্বপ্রথম আপনার জন্য যেটা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন তা হল আপনার নিজের প্রতি বিশ্বাস। আপনি যেই কাজটি করছেন, যদি এমন হয় যে নিজেই বুঝতে পারছেন না আপনার দ্বারা কাজটি হবে কিনা, তাহলে সেই কাজটি করা অনেক বেশি কঠিন হয়ে যাবে। আর যদি বিশ্বাস করেন যে আপনি অবশ্যই পারবেন, আপনাকে পারতেই হবে, তাহলে একি কাজ অনেক সহজ হয়ে যায়। এজন্য নিজেকে বিশ্বাস করতে শিখুন।

 

২) আপনার লক্ষ্যগুলি সনাক্ত করুন:

ক্যারিয়ারের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করার আগেই আপনাকে নিজের সম্পর্কে জানতে হবে। বেশিরভাগ মানুষ একটি সু-প্রতিষ্ঠিত প্যাটার্ন অনুসরণ করে জীবনযাপন করার চেষ্টা করে। দুঃখের বিষয় হল, তারা কী করে তা পছন্দ করে না বা তারা সত্যিই বুঝতে পারে না যে তারা আরও কত কী করতে পারে।

এই ভয়াবহ ঘটনাটি এড়াতে আপনার সবচেয়ে বড় যুক্তিযুক্ত ইচ্ছাগুলি কী তা আপনাকে সনাক্ত করতে হবে। তারপরে, আরও গভীরে যেতে হবে এবং গভীরভাবে অন্তর্দৃষ্টি দিয়ে চিন্তা করতে হবে যে আপনার নিজের অভ্যন্তরীণ ইচ্ছা এবং আপনার যুক্তিযুক্ত লক্ষ্যগুলির মধ্যে সংযোগ আছে কিনা।

এই দুইয়ের মধ্যে অবশ্যই মিল থাকতে হবে। অন্যথায়, আপনি আপনার পেশাদার জীবনকে সত্যই পরিপূর্ণ করতে পারবেন না। আপনার লক্ষ্যগুলি সনাক্ত করতে কিছু সময় এবং প্রচেষ্টা লাগে, তবে এটি সত্যিই কোনও সফল ব্যক্তির জীবনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া।

 

৩) একটি পেশাদার জীবনবৃত্তান্ত (Resume) তৈরি করুন:

আপনার জীবনবৃত্তান্তটি মূলত আপনার বলার পদ্ধতি এইভাবে যে “আমি এই কাজে ভালো, ঐ কাজে ভালো এবং আমি আপনাকে এই কাজে, ঐ কাজে সাহায্য করতে পারি” ইত্যাদি। ঠিক আছে, এজন্য আপনার একটি পেশাদার এবং সুন্দর জীবনবৃত্তান্ত তৈরি করা উচিত।

সুযোগ সর্বত্রই রয়েছে, এরজন্য আপনার উন্নতমানের পেশাদার জীবনবৃত্তান্ত তৈরি করে সর্বদা প্রস্তুত থাকা উচিত। এখন অনলাইন ভিত্তিক সিভি তৈরি করার প্লাটফর্ম আছে যা আপনাকে ক্লাসিক বা চিত্তাকর্ষক ভিজ্যুয়াল রিজিউমি তৈরি করতে সহায়তা করতে পারে। অথবা অভিজ্ঞ, সফল ব্যক্তিদের কাছ থেকে সাহায্য নিয়ে তৈরি করতে পারেন।

 

৪) আপনার শক্তি সম্পর্কে সচেতন হন:

সচেতনতা ব্যক্তিগত উন্নতির মূল চাবিকাঠি। আপনার অভ্যন্তরীণ চিন্তাভাবনা, আপনার শক্তি, আপনার ইচ্ছা এবং আপনার অসুবিধাগুলি সম্পর্কে সচেতন হয়ে আপনি আপনার জীবনের যে কোনও পরিস্থিতিতে যা করছেন তার সাথে নিজের জীবনকে মানিয়ে নিতে পারেন। আপনি সর্বোত্তম উদ্দেশ্যগুলি অর্জন করতে পারেন যেহেতু আপনি সর্বোত্তম উদ্দেশ্যগুলির জন্য আপনার জ্ঞান এবং প্রজ্ঞাটি অর্জন করতে পারেন।

আপনি নিজের সম্পর্কে যা জানেন সে অনুযায়ী আপনি যদি দীর্ঘমেয়াদী পেশা বেছে নেন তবে এটি আরও ভাল। আপনি কি একজন রোগী মানুষ? আপনি কি কম্পিউটারে কাজ করে অফিসে আট থেকে বারো ঘন্টা বসে থাকতে পারবেন? বা আপনি বরং একজন ফুটবল কোচ হবেন কারণ আপনি ফুটবলের প্রতি সত্যই আগ্রহী এবং আপনি বিশ্বাস করেন যে আপনি একজন দক্ষ প্রশিক্ষক হতে পারেন?

আপনার শক্তি এবং অসুবিধাগুলি যাই হোক, আপনার ক্যারিয়ারের পথ এমনভাবে বেছে নেওয়া উচিত যা আপনার বৈশিষ্ট্য এবং গুণাবলীকে তরান্বিত করে।

 

৫) আপনার জীবনের জন্য সম্পূর্ণ দায়িত্ব অনুমান করুন:

সাধারণ এবং সফল পেশাদারদের মধ্যে একটি পার্থক্য হল: দায়িত্ব। যদিও আপনি ধারণাটি জানেন তবে আপনি এটি প্রতিদিন প্রয়োগ করতে পারেন না। যখনই কোনও খারাপ ঘটনা ঘটে তখন আপনি নিজেকে এর সাথে মানিয়ে নেন।

আপনার সমস্ত কাজের জন্য দায় গ্রহণ শুরু করুন এবং কখনও আপনার ভুলের জন্য অন্য কাউকে দোষ দেবেন না। এটি সবচেয়ে খারাপ কাজ যা যে কেউ করতে পারে।

 

৬) সর্বদা আপনার সম্মান বাড়াতে থাকুন:

এটা আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা সফলতা এবং অসফলতা নির্ণয় করে। আপনার মানদণ্ডগুলি আপনার চিন্তাভাবনা, বিশ্বাস এবং আচরণের পদ্ধতিকে প্রভাবিত করে। যদি আপনার মানদণ্ডগুলি উচ্চমানের হয় তবে আপনি কখনই কম অর্জনে সন্তুষ্ট হতে পারবেন না। উচ্চ মানের লোকেরা গড়ে বেশিরভাগই সফল হয়।

প্রতি দুই বা তিন মাস পর পর কিছু সময় আপনার মানদণ্ডগুলি নিয়ে ভাবুন। যতক্ষণ না আপনি আপনার নিজেকে নিজের সেরা সংস্করণ বানাতে পারছেন, ততক্ষন পর্যন্ত একটু একটু করে আপনাকে উন্নত করার চেষ্টা করুন।

 

৭) নিজের পরিচিতি বাড়ান (Brand Yourself):

ব্র্যান্ডিং আজকাল খুব গুরুত্বপূর্ণ। বড় বড় সংস্থাগুলি বাজারে নিজেকে সু-প্রতিষ্ঠিত করতে কয়েকশো কোটি টাকা ব্যয় করছে। এটি প্রায় প্রতিটি পেশাদার সংস্থার দ্বারা ব্যবহৃত একটি পুরানো ব্যবসায়িক কৌশল। আপনার ব্র্যান্ডিং হল মার্কেটপ্লেসে আপনার অবস্থান।

পেশাদার কর্মীদের তাদের নাম এবং পরিষেবাগুলি ব্র্যান্ডিং করা উচিত এবং ক্রমাগত এটি উন্নত করা উচিত। আপনি ব্লগ শুরু করে, একটি পেশাদার সামাজিক মিডিয়া প্রোফাইল তৈরি করে বা কেবল দুর্দান্ত সেবা সরবরাহের মাধ্যমে এটি করতে পারেন।

 

৮) নেটওয়ার্ক বাড়াতে থাকুন:

নেটওয়ার্কিং হল সমস্ত সুযোগ এবং সংযোগ স্থাপনের কৌশল। আপনি যখন নতুন লোকের সাথে দেখা করেন, আপনি মূলত তাদের দক্ষতা আপনার সুবিধার্থে ব্যবহার করার সুযোগ পান। অবশ্য আপনাকেও কিছু দিতে হয় যেমন: আপনার পরিষেবাগুলি, আপনার জ্ঞান, আপনার অর্থ। সফল ব্যক্তিরা সর্বদা নেটওয়ার্ক করে এবং সারা জীবনের জন্য লাভজনক সম্পর্ক তৈরি করে।

লিংকডইন, টুইটার এবং ফেসবুকে সামাজিক মিডিয়া প্রোফাইল তৈরি করে শুরু করুন। এই ধরণের কার্যকলাপের ক্ষেত্রে এই তিনটি নির্দিষ্ট নেটওয়ার্কই সেরা পছন্দ। তবে এখন আরও কিছু প্লাটফর্ম যেমন পিনটারেস্ট, ইন্সটাগ্রাম এর মাধ্যমে আপনি এই পথে প্রচুর সুযোগ পাবেন কাজ করার।

উদাহরণস্বরূপ, লিঙ্কডইন এমন এক ব্যবসায়িক পেশাদারদের প্লাটফর্ম যা তাদের সংস্থাগুলির ব্র্যান্ডিং করছে এবং একই সময়ে নেটওয়ার্কিং করছে। টুইটারও এই বিষয়গুলিতে খুব ব্যবহৃত হয়, এবং ফেসবুক যা নেটওয়ার্কিং সহ সমস্ত কিছুর জন্য ভাল, বিশেষভাবে আমাদের দেশের জন্য।

উপসংহার

একটি সফল ক্যারিয়ার গড়তে সময়, প্রচেষ্টা এবং ধৈর্য লাগে। আপনি যদি কিছু ফ্রি সময় ত্যাগ করতে ইচ্ছুক হন এবং আপনি নিজের আরামের জায়গা থেকে বেরিয়ে আসতে রাজি হন তবে আপনি সফল হবেন। সত্যি বলছি, এটা তেমন কঠিন নয়। আপনার লক্ষ্যবস্তু পর্যন্ত পৌঁছতে কেবল সাহস এবং প্রতিশ্রুতির প্রয়োজন।

Written Credit: Monjurul Islam

এখনো কোন প্রশ্ন আছে? অথবা আমাদের সাথে কথা বলতে চান?

তাহলে নিচের ফরমটি পুরন করুন, আমরা আপনার সাথে যোগাযোগ করবো, ইংশাআল্লাহ! আপনি আমাদেরকে ০১৭১৬ ৯৮৮ ৯৫৩ / ০১৯১২ ৯৬৬ ৪৪৮ এই নাম্বারে কল করতে পারেন, অথবা ইমেল করতে পারেন hi@mahbubosmane.com এই ইমেলে, আমরা আপনাকে কোনভাবে সাহায্য করতে পারলে খুশি হব, ধন্যবাদ ।


মাহবুবওসমানী.কম এর সার্ভিস সমূহঃ

 

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

It is main inner container footer text