img

Make A Successful Career With Internet Marketing

/
/
/
47 Views

Make A Successful Career With Internet Marketing!

Make A Successful Career With Internet Marketing
Success

কীভাবে শুরু করবো, আসলে খুব ভালো লিখতে পারিনা 🙁  তাই শুরু টা মজার হবে না, তবে কথা দিচ্ছি শেষ পর্যন্ত পড়লে ভালো লাগতেও পারে 🙂 ডিরেক্ট কাজের কথায় চলে যাই ।

আসল কথা হলো একটা প্ল্যান অনেকদিন ধরে মাথায়, তাই আপনাদের সাথে শেয়ার করা, বিশেষ করে যারা মার্কেটিং নিয়ে লং টাইম কাজ করতে চান অথবা  অনলাইনে লং টাইমের জন্য ক্যারিয়ার চান, তবে  তা মার্কেটিং না হয়ে অন্য কিছুও হতে পারে, যেমন ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট অথবা মোবাইল এপ্লিকেশন ডেভেলাপমেন্ট। শত শত পেশা অনলাইনে খুঁজে পাওয়া কোন ব্যাপার ই না, তবে আমি যেহেতু মার্কেটিং নিয়ে কাজ করি তাই আমার প্ল্যান পরিকল্পনা মার্কেটারদের নিয়ে ।

একটা বাস্তব গল্প দিয়ে বলি, ৮ মাস আগে অনার্স শেষ করলাম, আজকে (১০/১৬/২০১৫) ভার্সিটিতে মাস্টার্সের ফার্স্ট ক্লাস করলাম, ইচ্ছা করেই ৮ মাস পর ভর্তি হলাম নিজের বিজনেসের ব্যস্ততার কারনে। তো গল্প টা হচ্ছে, অনার্স শেষে আমার এক বন্ধু একটা চাকরী পেলো, সেলারি ১২০০০ হাজার আর এক্সট্রা পাবে ৮০০০ এর মতো। তো সে চাকরীটা পেয়ে অনেক খুশী, মোটামুটি ফাইনাল আমাদের একটা সেই ট্রিট দিবে বেতন পেলেই, চাকরী টা তার অনেক দরকার ছিলো, এবং সে তা পেয়েও গেছে, এই রকম হাজার হাজার যুবক আছে, শিক্ষিত বেকার আছে ১০০০০-২০০০০ টাকার একটা চাকরীর জন্য অনেক অনেক বেশি চেস্টা করছে।

গল্প টা এখানেই শেষ! মনে হচ্ছে এটা কোন গল্প হলো? আসলেই কোন গল্প না, তবে হ্যাঁ, শেষের দিকে গিয়ে আমি বলবো কেনো এই কথা গুলি লিখলাম।

তার আগে আমাদের শিক্ষা ব্যাবস্থা নিয়ে একটু আলোচনা করি, প্রাইভেট বলেন আর পাবলিক বলেন, বাস্তব জীবনে আমদের পড়ার সিলেবাস কতো পারসেন্ট কাজে লাগে? এর উত্তর আপনাদের ভালো জানা আছে ………

এই শিক্ষা ব্যবস্থা আমাদের চাকর বা গোলাম ছাড়া আর অন্য কিছু বানায়? আমার মনে হয় না 🙁 সময় এসেছে বাস্তব / কর্ম মুখি শিক্ষা ব্যাবস্থা চালু করা। সেই কবে হতে communicative ইংলিশ পড়ছি, উন্নতি?

যাই বলুন, দিন শেষে  আমাদের ৯০% মানুষের চিন্তা কীভাবে ভালো একটা চাকরী পাবো! আসলে এটা আমাদের দোষ না, আমাদের সিস্টেম টাই এইভাবে চলে আসছে।

আমার বন্ধু, আমার কাছে যখন অনেক খুশী হয়ে ২০০০০ টাকার চাকরীর কথা বলে, আমি তখন একটু চিন্তা করে মনে মনে দুইটা জিনিস ভাবলাম।

১। আসলেই তো কতো হাজার হাজার যুবক বাংলাদেশে আছে যাদের কাছে ২০,০০০ টাকার চাকরী অনেক বড় কিছু, এই চাকরী পেয়ে হয়তো কি কি করবে, কীভাবে খরচ করবে, মাকে কতো দিবে, ছোট বোনকে কি দিবে, বান্ধবীকে কি দিবে পরিকল্পনা করা শুরু হয়ে গেছে। 🙂

২। আরেকটা চিন্তা হচ্ছে , এই মুহূর্তে ২০০০০ টাকা দিয়ে চলা কীভাবে সম্ভব? আমি বড়াই করছিনা আমি অনেক বেশি ইনকাম করি, আবার অনেক মানুষ ১০,০০০ টাকা দিয়ে খুব ভালো ভাবে সংসার চালায়। যার নাই তার কাছে ২০০০০ টাকা অনেক, কিন্তু আমি আর আমার বন্ধু, সেম পজিশনে, আমার চিন্তা হচ্ছে ১ লাখ টাকা মাসিক ইনকাম তো ব্যাসিক নিডস, কীভাবে একটা প্যাসিব ইনকাম দাড় করানো যায়, যেখানে ২০০০০ টাকার চাকরী করবোনা, ২০০০০ টাকার চাকরী হাজার হাজার মানুষকে কীভাবে দিতে পারবো।

কিন্তু আমার মনে যে চিন্তাগুলি আসলো, কেনো? কারন অনেক দিন ধরে অনেক বড় পরিসরে কাজ করছি, আলহামদুলিল্লাহ্‌! বলা চলে পুরো দুনিয়ার সাথে কাজ করছি, দেখছি, মানুষ কীভাবে স্বপ্ন দেখে, কতো বড় তার স্বপ্নের পরিসর! কীভাবে তারা স্বপ্নের জন্য চিন্তা করে, কতো স্মার্ট ভাবে সে তার স্বপ্ন কে ছুয়ে দেয়, অন্য মানুষ তার সফলতার দিকে তাকিয়ে চিন্তা করে এটা কীভাবে সম্ভব!

এই যে একটা চিন্তার পার্থক্য, এটার কারন কি বলতে পারেন? আমিই বলে দিচ্ছি, এটার কারন হলো পরিবেশ, পরিস্থিতি, আপনি যত বড় পরিসরে যাবেন, আপনার চিন্তার পরিধি ততো বড় হবে, অনেক বড় চিন্তা করতে শিখবেন, এমন চিন্তা করতে শিখবেন, যার বাস্তবতা আছে, আপনি আপনার চিন্তা বা স্বপ্নের পথ কে স্টেপ বাই স্টেপ দেখতে পাবেন।

কি? অনেক বড় ভুমিকা টেনে ফেললাম,  তাই না?

আর বেশি ভুমিকা নিয়ে কথা বলবনা, চিন্তা নিয়ে অনেক কথা বললাম, কেনো বললাম? কারন আমিও অনেক বড় কিছু চিন্তা করি অ্যান্ড স্বপ্নে দেখছি। বিশ্বাস করুন, আমার স্বপ্ন আমাকে ঘুমাতে দেয় না। তো এতো বড় স্বপ্ন তো আর একা বাস্তবায়ন সম্ভব না, অনেক মানুষকে সাথে নিয়ে করতে হয় বা করতে হবে। আমি বা আমরা চেস্টার মালিক, দেয়ার মালিক আল্লাহ্‌।  তাই আপনাদের কে সাথে নিয়ে চিন্তা করছি বিশাল একটা মার্কেটিং টিম  হবে, যেখানে হাজার হাজার না হোক, অন্তত শত শত মারকেটার থাকবে। আমি মারকেটার, মার্কেটিং নিয়েই ৫+ বছর কাজ করছি, আর তা হলো ইন্টারনেট  মার্কেটিং, মোটামুটি আমার ফ্রেন্ড লিস্টের অনেকেই জানেন।

আমার পুরো প্ল্যান টা আপনাদের সাথে শেয়ার করার আগে দেশের, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই ও অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালক Shameem Ahsan ভাইয়ের আজকের একটা বক্তব্য আপনাদের সাথে  পিকচার আকারে শেয়ার করলাম  যা কিনা আমি পোস্ট করেছি আমার টিম মেম্বারদের জন্য।

Shameem Ahsan

কি সম্ভব? কি মনে হয়, তিনি ওই পর্যায়ে চলে গেছেন বিধায় এতো বড় স্বপ্ন দেখতে পারেন, তার স্বপ্ন অলীক কোন কল্পনা নয়।  আপনার আমার টিমের শত শত মারকেটার, শত শত ডেভেলাপার থাকবে একটা কোন অবাস্তব কোন চিন্তা নয়।

সফলতার জন্য ৪ টি মূল পয়েন্টঃ

১। ‘বড় স্বপ্ন দেখা,

২। স্বপ্নকে মন থেকে বিশ্বাস করা,

৩। টিমওয়ার্ক করা  ও তা

৪। বাস্তবায়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করা।

অনেকেরই মনে হবে ২-৪ জন মিলে টিম করতে পারিনা, আবার শত শত লোক! কীভাবে সম্ভব, হ্যাঁ সম্ভব! আমি  আবারো বলছি সম্ভব, কীভাবে সম্ভব তা আমি পরে বলছি, আর হ্যাঁ, ইনশাআল্লাহ্‌, আমিই আপ্নাদের টিম বিল্ডাপ করে দিবো। এইবার বলে নেই টিম ওয়ার্কের সুবিধা গুলিঃ

  • টিমওয়ার্কের মাধ্যমে মনোবল এবং নেতৃত্বের দক্ষতা উন্নত হয় খুব সহজে।
  • টিম অয়রাকের মাধ্যমে খুব সহজে বাঁধা গুলিকে খুঁজে পাওয়া যায় যেটা আপনার সৃজনশীলতা ব্যহত করে।
  •  উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য খুবই পরিস্কার থাকে একটা টীম ওয়ার্কের সময় (ধরুন আপনি মনে করলেন ৫ টা নিস/ অথোরিটি সাইট করবো ৬ মাসে ৮ জন মিলে)
  • কাজের প্রক্রিয়া গুলি ধীরে ধীরে অনেক বেশি উন্নত হয় যা কিনা আপনি একা করলে ৫ বসরে সম্ভব হত, তা হয়তো আপনি ১ বসরে শিখে গেলেন।
  • সাংগঠনিক দক্ষতা অনেক বেড়ে যায়।
  • টীমের শক্তি ও দুর্বলতা খুব সহজে সনাক্ত করা যায়।
  • সমস্যা সমাধান করার ক্ষমতা দ্রুত বেড়ে যায়।
  • ট্রাস্ট তৈরি হয়ে যায় একে অপরের মাঝে।
  • একে অপরকে সাহায্য করার প্রবনতা তৈরি হয়।
  • যোগাযোগের কার্যকরী ভুমিকা হচ্ছে টিম ওয়ার্ক।
  • দীর্ঘমেয়াদি উপকারিতার জন্য টিম ওয়ার্কের বিকল্প নাই।
  • কোনো এক ব্যক্তির সামর্থ্যের চাইতে টীমের সামর্থ্য অনেক বেশি তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না, কথায় আছে “একের বোঝা দশের লাঠি”
  • অনেক জটিল সমসসার সমাধান করা যায় যা কিনা একার দ্বারা কখনো সম্ভব না
  • টিমে কাজ করলে অনেক অনেক নতুন ধারণা তৈরি হয়।
  • বড় একটা গোলের জন্য অনেক মানুষ একসাথে কাজ করে।
  •  একজন টিম মেম্বার আরেকজনেকে অনেক ভাবে সাহায্য করে ।
  • একে অপরের থেকে শিখতে সাহায্য করে যা কারনে শিখার সুযোগ অনেক বেড়ে যায়।
  • Commitment তৈরি হয় টিম মেম্বারদের মাঝে।

কীভাবে টিম বিল্ড করবো?

[sociallocker id=”326″]

লিখলে আরো কিছু পয়েন্ট লিখা যাবে, দরকার মনে করছিনা।  তো  এখন চিন্তা করছেন এতো সুবিধা পেতে কীভাবে টিম বিল্ড করবো? হ্যাঁ! এটা বলার জন্যই আজকের এতো বড় লিখা।

আমি চিন্তা করেছি, আমার বর্তমান ৩ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন টিম নিয়ে প্রতিটা জেলায় যাবো, সিরিয়াস মার্কেটার নিয়ে একটা টিম গঠন করবো। তাদের কে ৩ মাসে ইন্টারনেট মার্কেটিং এর একটা ব্যসিক গড়ে দিবো + বাকি ৬ মাস আমাদের সাথে রেখে লাইভ প্রোজেক্ট করাবো যা দিয়ে তারা লং টাইম আরনিং করতে পারবে অ্যান্ড প্রাক্টিক্যাল শিখতে পারবে।  যাতে করে, ওই টীম ভালো একটা এমাউন্ট ইনকাম করতে পারে ওই পর্যন্ত গাইড লাইন করবো। আগেই বলে রাখি আমার কাছে ইন্টারনেট মার্কেটিং এক্সপার্ট মানে হচ্ছে তার তার ব্যসিক ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট (মিনিমাম WP দিয়ে) ব্যাসিক গ্রাফিক ডিজাইন, সাইটে ভিজিটর আনার সব কার্যকরী কৌশল জানতে হবে, আমার কাছে ইন্টারনেট মার্কেটিং মানে শুধু মাত্র SEO,SMM,SEM না তবে আমার কোর্সে এইগুলি অবশ্যই থাকবে। [/sociallocker]

এই জন্য আমার এই টিমে থাকবে মিনিমামঃ

১। একজন ডেভেলাপার। (২/৩ বসরের অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ  )

২। একজন গ্রাফিক ডিজাইনার। (২/৩ বসরের অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ  )

৩। মেইন মার্কেটার হিসাবে আমি থাকবো। এই ছাড়া প্রত্যেক জেলার যিনি বেস্ট মার্কেটার, মানে অনলাইনে প্রুভেন ভাবে সফল উনাকে বা উনাদের কে রাখার চেস্টা করা হবে । ঢাকা থেকে প্রতিটা বিষয়ে যিনি এক্সপার্ট উনাকে নেয়ার চেস্টা করবো, কারন আমি তো আর সব বিষয়ে এক্সপার্ট না।

৪।  একজন ইমেল মার্কেটার ও (২-৩ বসরের অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ  )

৫। একজন কন্টেন্ট রাইটার। (২-৩ বসরের অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ  )

যা যা শিখানো হবে আপনাদেরঃ

১। আত্মবিশ্বাস বিল্ডাপ, গোল সেটাপ ও ব্যসিক ইন্টারনেট মার্কেটিং  কনসেপ্ট।

২। ব্যসিক অ্যান্ড অ্যাডভানস এস ই ও + কনটেন্ট রাইটিং।

৩। সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং।

৪। ব্যসিক ওয়েবসাইট ডেভেলাপমেন্ট + ব্যসিক গ্রাফিক ডিজাইন।

৫। অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েশন (জেলারপ্রতিটি টীমের জন্য একটি অথোরিটি সাইট বানিয়ে দেয়া হবে যার মাধ্যমে আপনারা একেবারে প্র্যাক্টিক্যালি কাজও শিখবেন + ১/২ বসর পর সাইট বিক্রি করে টীমের সবার হাতে যাতে ভালো একটা এমাউন্ট পেতে পারেন ওই চেস্টা করা হবে)

৬। টারগেটেড পেইড ট্রাফিক জেনারেশন।

৭। ইমেল মার্কেটিং ।

উপরে দেখুন, আমি ব্যাপার গুলিকে এমন ভাবে সাজিয়েছি, যাতে করে একজন একেবারে ব্যাসিক থেকে শুরু করে স্টেপ বাই স্টেপ ইন্টারনেট মার্কেটিং শিখতে পারেন আপনার ভবিষ্যতের জন্য।

কতো দিনে শিখানো হবে?

শিখানোর ব্যাপ্তি হবে ৩ মাস! + প্রোজেক্ট ৬ মাস। অনেক বেশি সময় হয়ে গেলো? অনেকে ৩ দিনে ফ্রিল্যান্সার বানায়, কেউ আবার ১ দিনে! ভাই আমার কাছে কোন আলাদ্দিনের চেরাগ নাই! আমি পারবোনা এর চেয়ে কম সময় আপনাদের মার্কেটিং ক্যরির‍্যার বিল্ডাপ করে দিতে, আপনি যদি শর্ট কার্ট চান, তাহলে এই প্ল্যান থেকে ১০০ হাত দূরে থাকুন।

“There is no shortcut way to be succeed”

  • টেস্ট ব্যসিস প্রথম দুই মাস এক এক করে ৮ সপ্তাহে ৮ টি জেলাতে যাবো আমরা, প্রতি জেলাতে সপ্তাহে ৫ দিন আপনাদের সাথে থেকে স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করবো অ্যান্ড আমাদের আগের করা প্রাক্টিকাল কাজ গুলি দেখাবো। ব্যসিক আইডিয়া দেয়ার পর পরবর্তী ৩ মাসের কাজ শিখার একটা আউটলাইন দিয়ে আসবো। এই ৫ দিনের ৪ দিন হচ্ছে বুট ক্যাম্প আর ১ দিন হচ্ছে আমরা সবাই মিলে মজা করবো। 
  • ৩ মাসে আপনাদের সাথে কয়েকটা গোটু মিটিং দিয়ে ক্লাস নিবো অ্যান্ড আপনাদের শিখার অগ্রগতি যাচাই করা হবে।
  • এই ৩ মাসে আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে উপরে প্রতিটা টপিকের উপর আলাদা আলাদা ভিডিও পাবেন আপনারা।
  • ৩ মাস শিখার পর আপনারা প্র্যক্টিক্যাল প্রোজেক্ট শুরু করবেন আমাদের তত্ত্বাবধানে যা চলবে পরবর্তী ৬ মাস পর্যন্ত। প্রাক্টিক্যাল প্রোজেক্ট হবে টীমের জন্য একটি অথোরিটি সাইট বানিয়ে দেয়া, যার মাধ্যমে আপনারা প্র্যাক্টিক্যালি কাজও শিখবেন + ১/২ বসর পর সাইট বিক্রি করে টীমের সবার হাতে যাতে ভালো একটা এমাউন্ট পেতে পারেন ওই চেস্টা করা হবে। এখানে দেখুন নিস অথবা অথোরিটি সাইট কেমন দামে সেল হয়। এই সাইট করার জন্য আপনাদের মাসে ৫০০-১০০০ টাকা খরচ হবে। আশা করি এই অল্প ইনভেস্ট আপনাদের জন্য কোন ব্যাপার না।
  • তার মানে দাঁড়ালো আপনারা প্রথম ৩ মাস শিখবেন, আর বাকি ৬ মাস আমাদের সাথে প্র্যক্টিক্যাল প্রোজেক্ট করবেন।
  • ইনশাআল্লাহ্‌, ৯ মাসে আপনাদের অনলাইনে মার্কেটিং  এর একটা ভিত্তি তৈরি করে দেয়ার জন্যই আমাদের এই প্রচেস্টা।
  • তার পরবর্তীতে আপনি চাইলে আমাদের সাথে থাকতেও পারেন নাও থাকতে পারেন, তা আপনার ইচ্ছা, আমাদের কোন বাইন্ডীংস নাই।
  • তবে যারা আমাদের সাথে থাকবেন তাদের জন্য আরো বড় মাষ্টার প্ল্যান আছে, তা পরবর্তীতে মেম্বারদের সাথে শেয়ার করা হবে।
  • কাজ করবো ৫ দিন আর একদিন আপনাদেরকে নিয়ে ঘুরে দেখবো ওই জেলাটা, এক ঢিলে দুই পাখি 🙂

কোন জেলায় আগে যাবো?

এটা এখনো ফিক্সড হয়নি, ৩ জেলা থেকে ইনভাইটেশন আসছে, কাউকে ফাইনাল ভাবে কিছু বলা হয়নি, কারন আমাদের প্ল্যান রেডি ছিলনা, তবে যেই জেলা হতে আগে রেজিস্ট্রেশন কমপ্লিট হবে ওই জেলাতে আমরা আগে যাবো। আমরা প্রতি জেলা হতে ম্যাক্সিমাম ২০ জন নিবো যাতে সবাইকে ভালো ভাবে শিখাতে পারি, তবে মিনিমাম ১০ জন না হলে ওই জেলাতে আমরা যাবোনা। 🙁  ২০ জন হতে আমরা ৪ জনকে ফুল ফ্রি! শিখাবো, আর ১০ জন হলে ২ জনকে, আর বাকি সবার জন্য রেজিস্ট্রেশন ফি থাকবে।

রেজিস্ট্রেশন ফি কতো টাকা?

রেজিস্ট্রেশন ফি ১৫,০০০ টাকা। রেজিস্ট্রেশনের লাস্ট ডেটঃ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫। টাইম বেশি মনে হচ্ছে? তাহলে আমাদের নিয়মিত শর্টকোর্স গুলি দেখতে পারেন।

কাদের জন্য এই প্ল্যান ? আপনারা কেমন সাপোর্ট পাবেন?

  1. শুধুমাত্র যারা লংটাইম ইন্টারনেট মার্কেটিং এ ক্যারিয়ার তৈরি করতে চান।
  2. তবে মিনিমাম এইচ এস সি অথবা তার সমমান পাশ  হতে হবে আপনাকে, অন্যদের মতো গণহারে  সবাইকে এখানে এলাউ করা হবে না, কারন আমি চাই এটা হবে প্রফেশনাল টীম, যাদের নিয়ে আমাদের আছে আরো অনেক বড় পরিকল্পনা।
  3. প্রোজেক্ট সফল হওয়া পর্যন্ত সাপোর্ট পাবেন আমাদের ওয়েবসাইট অ্যান্ড সিক্রেট গ্রুপের মাধ্যমে। আর প্রতিটা টীমের সাথে ByteCode পার্টনার থাকবে, প্রোজেক্ট সাক্সেস হলে  বাইটকোডও একটা এমাউন্ট পাবে, সো আমরা সাপোর্ট দিবো আমাদের প্রোজেক্ট মনে করে, আপনারা কাজ করবেন আপনাদের প্রোজেক্ট মনে করে। 🙂 এই ধরনের অফার কেউ এখনো পর্যন্ত দেয়নি একমাত্র আমরা ছাড়া।

এই প্ল্যানের পর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি? কাজ শুরু হবে কখন?

আসলে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা অনেক, এটা টাইম টু টাইম বলা হবে, কারন একটা পার্ট সফল হওয়ার উপরে অন্য পার্ট শুরু করা নির্ভর করছে। আমরা নভেম্বরের ১ তারিখ হতে কাজ শুরু করবো, ইনশাআল্লাহ্‌।

কেন এই প্ল্যান? এটা কি চলতেই থাকবে?

  1. মেইনলি বড় টীম তৈরির  মাধ্যমে মিউচুয়াল ভাবে সবাই বেনিফিটেড হওয়া। বড় টীমে নিয়ে কি পরিকল্পনা তা এখানে পাবলিক ভাবে শেয়ার করবোনা। ইনশাআল্লাহ্‌ ক্লোজ গ্রুপে আসলে শুনতে পারবেন।
  2. না আমাদের ট্রেনিং কন্টিনিউ করার কোন পরিকল্পনা নেই, যদি পরিকল্পনা থাকতো তাহলে ByteCode ২০১৩ সালে গতানুগতিক ট্রেনিং অফ করে দিতনা।
  3. তবে অবস্থা বুঝে এই কার্যক্রম ১-২ বসর পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে। তবে ডিসেম্বর পরে অনেক দিন রেজিস্ট্রেশন অফ থাকবে।
  4. এ ছাড়া আমাকে অনেকেই ইনবক্স করেছেন ঢাকার বাহিরে কিছু করার জন্য, তাদের কথা ভেবে আমাদের এই পরিকল্পনা।

 কেন এই কোর্সটি করবেন?

  • কোর্স শেষে টীমের সবাই একটা অ্যামাজন অথোরিটি সাইটের মালিক (প্রতিটা ১০ জনের জন্য ১ টি সাইট) হবেন যা আমাদের টার্গেট মিনিমাম ১০,০০০ ডলারে সেল করা। এটার অংশীদার আপনারা সবাই।
  • যেহেতু কার্যক্রম টা ৬৪ জেলায়, তাই আমাদের টার্গেট সবাই মিলে মিনিমাম ৬৪ টা নিস/অথোরিটি সাইট তৈরি করা। চিন্তা করতে পারেন, এতগুলি কাজ প্রাক্টিক্যাল ভাবে করলে আমরা কতো কিছু শিখতে পারবো? ইন্টারনেট মার্কেটিং লেভেল আমাদের কোন পর্যায়ে যাবে? 
  • এমন কোর্স বাংলাদেশে এটাই প্রথম, আমার জানা মতে আর অন্য কেউ অফার করে নি। 
  • নয় মাস সময় আপনাকে কেউ শিখাবে না বা এতো সময় কেউ আপনাকে সাপোর্ট দিবেনা, আমরাই এই ধরনের উদ্যোগ প্রথম নিলাম।
  • সবাই শর্ট টাইম কোর্স অফার করে শুধুই টাকা ইনকাম করে নেয়, পরবর্তীতে আপনাদের কি হলো না হলো আর খোঁজ নেয় না। 
  • এতো অল্প টাকায় ইন্টারনেট মার্কেটিং এর এতো গুলি বিষয় কেউ শিখাবে না, এটা আমাদের চ্যলেঞ্জ।
  • আসলে এখানে মূল কাজ টা হবে টীম স্প্রীট, কারন ১ টা অথোরিটি সাইট করতে গেলে মিনিমাম ১ লাখ টাকা ইনভেস্ট করতে হয়, সেখানে আপনার লাগবেঃ টীমে  ২০ জনে হলে এর ২০ ভাগের ১ ভাগ, আর ১৫ জন হলে ১৫ ভাগের ১ ভাগ তাও আবার ৯ মাসে। কতো কিছু যে শিখবেন টীম ওয়ার্কের মাধ্যমে তা আপনাদের ২য় বার বলতে হবে না। তবে হ্যাঁ প্রফিট একটু কম আসবে কিন্তু বিশ্বাস তো জন্মাবে একসাথে অনেক কিছু করা যায়।  আর আপনার ইনভেস্টের সামর্থ্য থাকলে আপনি টীমের পাশা পাশি পার্সোনাল সাইট করুন, আমাদের তো কোন নিষেধ নাই। 

আমি এই কোর্স প্ল্যানটা এমনভাবে সাজিয়েছি, যাতে করে দুই পক্ষই বেনিফিটেড হয়, তবে এই কথা সবাইকে স্বীকার করতেই হবে, অনশগ্রহন কারিরা বেশি বেনফিটেড হবেন এই জন্য যে, আপনারা প্রাক্টিক্যাল কাজও শিখলেন + কিছু ইনকাম ও করতে পারলেন, কিছুনা ভালো পরিমানই ইনকাম হবে ইনশাআল্লাহ্‌, তবে আপনারা আমাদের গাইড লাইন মেনে একটিভ ভাবে ৯ মাস কাজ করতে হবে আর এই কাজ শিখার পর আমাদের সাথে থাকতেই হবে এমন কোন বাইন্ডিংস নাই। তবে টাইম একটু বেশি কারন সফলতার জন্য কোন শর্ট নিয়ম নাই, আপনাকে কস্ট করতেই হবে।

এখানে যেই কোর্স প্ল্যান লিস্ট করলাম তা আমার শিখতে লেগেছে ৫ বছর! কিন্তু আপনাদেরকে ৯ মাসে তার চেয়ে ভালো মানের প্রফেশনাল বানাতে চাই, দূর করতে চাই আপনাদের হতাশা! জানি ১০০% সফলতা সম্ভব না তবে গতানুগতিকের চেয়ে ভালো কিছু হবে, ইনশাআল্লাহ।

এই কোর্সটিতে রেজিস্ট্রেশন করতে হলে এখানে ক্লিক করুন, টাকা পরিশোধ করে এই ফর্মটি পূরণ করুন।

আপনাদের জিজ্ঞাসা

মনে কোন প্রশ্ন জাগলে আমাদের FAQ অপশন টি দেখে নিতে পারেন। মার্কেটিং অথবা কোর্স রিলিটেড যেই কোন প্রশ্ন করতে ফেসবুক গ্রুপটি ব্যাবহার করুন। আমাদের সার্ভিস গুলি পেতে অথবা আমাদের নিয়মিত কোর্সের ব্যাপারে জানতে আমাদের কোম্পানি ওয়েবসাইট ব্রাউজ করুন।

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

16 Comments

  1. আমার চিন্তাভাবনা সাথে কিছু মিল পেলাম। তবে আমি আর আপনার মধ্যে পার্থক্য অনেক আমি শিখার চেষ্ঠা করছি। আর আপনি একজন সফল মার্কেটার । আর আমি শিখার চেষ্ঠা করছি। আসলে আপনার মত কেউ চিন্তা ভাবনা যদি এদেশের আইটি এক্সপার্ট করতেন তাহলে আমাদের অনেক বেকারদের কর্মসংস্থান সম্ভব হত। আপনি সবসময় চিন্তা করি টিম নিয়ে কাজ করার। আপনার এই প্রচেষ্ঠা সফল হক এই কামনা রইল ।

    • শুনে ভালো লাগলো যে আপনি আমাদের চিন্তার সাথে একমত 🙂 ভালো থাকবেন।

  2. thanks ur nice plan. have some questions
    1. how u handle as u r personally so busy
    2. after reg money ,have there any more fees monthly
    3. its only outside dhaka or include dhaka
    4. if anybody doing any job but wants to include with u in this course whats the policy .
    thanks again & jazakallah

    • ১। আপনাদেরকে সময় দিবো বলেই এই পরিকল্পনা করা, পার্সোনাল বিজনেস খুব একটা সমস্যা হবে না যেহেতু আমি টীম সেটাপ করে রেখেছি, ইনশাআল্লাহ্‌
      ২। না, আর কোন মাসিক ফি দিতে হবে না।
      ৩। বোথ।
      ৪। কোন সমস্যা নাই, আপনি খুব সহজেই থাকতে পারবেন, মাত্র ৪ দিন আমি আপনাদের সাথে থাকবো, আশা করছি ৪ দিনের জন্য আপনি ছুটি নিতে পারবেন। বাকি ৯ মাস মেনেজ হবে অনলাইনে।

      আশা করছি বুঝতে পেরেছেন।

  3. খুব ভালো একটা উদ্দ্যোগ নিয়েছেন। মার্কেটিং কাজ শেখার খুব ইচ্ছ থাকালেও ঢাকাতে গিয়ে শিখতে পারবনা। আপনাদের টিম আমার মত লোকের জন্য খুব দরকার।আপনাদের টিমকে প্রথমে পাবনাতে স্বাগতম জানাই।

    ধন্যবাদ

    • ধন্যবাদ! আপনি মিনিমাম ১০ জন মেনেজ করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন, আমরা আপনাকে তারিখ দিয়ে দিবো।

    • Same Prayer for you… Jajakallahu আপনার বন্ধুদের মাঝে আমাদের এই প্ল্যান টি শেয়ার করুন।

  4. Ami jessore theke proshikkhon nite agrohi.
    Kintu jessore e jodi 10 jon na hoi,then ami ki korbo?
    Apni please bistarito vabe bolun…

    • আপনি নিজ দায়িত্তে ঢাকায় এসে কোর্স টা করতে হবে, আরো প্রশ্নের উত্তর জানতে আমাদের এই পেজ টি দেখুন।

Leave a Reply

It is main inner container footer text