ব্যবসা নিবন্ধনের জন্য আইনি প্রক্রিয়া সমূহ

/
/
/
46 Views

আমরা যারা নতুন কোনো ব্যবসায় শুরু করতে চাচ্ছি কিন্তু বুঝতে পারছিনা কী করে আমার ব্যবসায় নিবন্ধনের জন্য কী কী আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হতে পারে তা নিচে তুলে ধরা হলোঃ

প্রথমে আপনাকে নির্ধারণ করতে হবে আপনি আসলে কোন ধরণের ব্যবসায় গঠন করবেন, মানে মালিকানার ভিত্তিতে ব্যবসায়কে তিন ভাগে করা যেতে পারেঃ

১। একমালিকানা ব্যবসায়ঃ আপনি যদি নিজেই একা ব্যবসায়ের মালিক হিসেবে থাকতে চান সেক্ষেত্রে আপনার একমালিকানা ব্যবসায় গঠন করা উচিত। এক্ষেত্রে আইনগত তেমন কোনো জটিলতা নেই, তবে আপনাকে সিটি কর্পোরেশন থেকে ট্রেড লাইসেন্স সংগ্রহ করতে হবে। অথবা আপনি সিটি কর্পোরেশনের বাইরে হলে পৌরসভা থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিতে হবে। তবে এটার অসুবিধা হলো আপনাকে একাই সব দায় বহন করতে হবে যেহেতু আপানার কোনো পার্টনার নেই। এবং আপনার ব্যবসায়ের দায়ের জন্য আপনার ব্যক্তিগত সম্পত্তি দায়ী থাকবে। ধরুন, আপনার একমালিকানা ব্যবসায়ে ১০০ টাকা দায় হলো, আপনার ব্যবসায়ের মোট সম্পত্তি হলো ৬০ টাকা এক্ষেত্রে ১০০ টাকা দায়ের বাকি ৪০ টাকা আপানার ব্যক্তিগত সম্পত্তি থেকে পরিশোধ করতে হবে।

২। অংশীদারি ব্যবসায়ঃ যদি আপনারা একাধিক ব্যক্তি মিলে ব্যবসায় করতে চান সেক্ষেত্রে অংশীদারি ব্যবসায় গঠন করতে পারেন, এবং কমপক্ষে ২ জন এবং সর্বোচ্চ ২০ জন মিলে অংশীদারি ব্যবসায় গঠন করা যায়। তবে এক্ষেত্রে আপনি বা আপনারা মৌখিক অথবা লিখিত চুক্তির মাধ্যমে অংশীদারি ব্যবসায় গঠন করে ফেলতে পারেন। তবে লিখিত চুক্তি করায় ভালো কারণ লিখিত চুক্তি না করলে আপনি ১৯৩২ সালের অংশীদারি আইন অনুসারে ১০০ টাকার বেশি পাওনা আদায়ের জন্য কারো বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবেননা। তাই চুক্তি লিখিত হওয়ায় ভালো। তবে এক্ষেত্রেও ট্রেড-লাইসেন্স সংগ্রহ করতে হবে এবং এক্ষেত্রেও ব্যবসায়ের দায়ের জন্য আপনারা যারা মালিক তাদের ব্যক্তিগত সম্পত্তি দায়বদ্ধ থাকবে।

৩। কোম্পানিঃ একাধিক ব্যক্তি মিলে ব্যবসায় করার ক্ষেত্রে আমরা অংশীদারি ব্যবসায় গঠন না করে কোম্পানিও গঠন করতে পারি। এবং কোম্পানি গঠন করাটাই বেশি সুবিধাজনক কারণ কোম্পানির দায়ের জন্য আপনার ব্যক্তিগত সম্পত্তি দায়বদ্ধ থাকবেনা। আমরা ২ ধরণের কোম্পানি গঠন করতে পারি।

ক। প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানিঃ এক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ২ জন এবং সর্বোচ্চ ৫০ জন মিলে প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি গঠন করতে পারেন। এবং এক্ষেত্রে নিবন্ধনের জন্য বেশ কিছু টাকার প্রয়োজন হবে সাধারণত বর্তমানে ছোটখাটো কোম্পানি ২০-২৫ হাজার টাকায় নিবন্ধন করে ফেলা যায়। তবে নিবন্ধনের জন্য কত টাকা লাগবে তা নির্ভর করে আপনি কতটাকা অনুমোদিত মূলধন নিয়ে নিবন্ধন করতে চান তার উপর। অনুমোদিত মূলধনের পরিমাণ বেশি হলে নিবন্ধনের টাকার পরিমাণও বেশি লাগবে।

খ। পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিঃ এক্ষেত্রে কমপক্ষে ৭ জন এবং সর্বোচ্চ যতজন খুশি ততজন মিলে পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি গঠন করতে পারেন। এবং এক্ষেত্রে আপনি বাজারে শেয়ার বিক্রয় করতে পারবেন সাধারণ মানুষের কাছে।
কোম্পানির ক্ষেত্রেও ট্রেডলাইসেন্স করতে হয়। এবং ট্রেড লাইসেন্স সাধারণত যিনি মূল দায়িত্বে থাকেন তার নামে করা হয়।
আজকে এ পর্যন্ত থাক, আর কিছু জানতে চাইলে কমেন্টে প্রশ্ন করুন।

এখনো আপনার মনে কোন প্রশ্ন আছে? অথবা আমাদের থেকে কল পেতে চান?

তাহলে নিচের ফরমটি পুরন করুন, আমরা আপনার সাথে যোগাযোগ করবো, ইংশাআল্লাহ! আপনি আমাদেরকে ০১৭১৬ ৯৮৮ ৯৫৩ / ০১৯১২ ৯৬৬ ৪৪৮ এই নাম্বারে কল করতে পারেন, অথবা ইমেল করতে পারেন hi@mahbubosmane.com এই ইমেলে, আমরা আপনাকে কোনভাবে সাহায্য করতে পারলে খুশি হব, ধন্যবাদ ।

মাহবুবওসমানী.কম এর সার্ভিস সমূহঃ

 

Written By: Muttafi Billah

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

It is main inner container footer text