img

কিভাবে সফল ফ্রিল্যান্সার হবেন?

/
/
/
25 Views
যদি আপনি ফ্রিল্যান্সিং এ নতুন হয়ে থাকুন তাহলে আশা করবো এই পুরো পোস্টটি পড়বেন একটু সময় নিয়ে। কারন এখানে ফ্রিল্যান্সিং’র সকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে করে? কীভাবে কি কাজ করবেন? কোথা থেকে শিখবেন? কীভাবে টাকা উঠাবেন সবই জানতে পারবেন এখানে।
তো চলুন শুরু করি।
শুরুতেই বলে নেই ” আমি কোন বইয়ের ভাষায় বুঝাবো না, আমি আমার মত করে সব চেয়ে সহজে বুঝানোর চেষ্টা করবো, ভুল হলে ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবেন।” আর না হয় ইগ্নোর করবেন।
ফ্রিল্যান্সিং কী?
সহজ কথায় ফ্রিল্যান্সিং হলো মুক্ত পেশা। তার মানে মুক্ত ভাবে কাজ করতে পারবেন, যেমন বাসায় বসে কাজ করতে পারবেন, গাড়িতে বসে কাজ করতে পারবেন, ছাদে বসে কাজ করতে পারবেন, কোন নিয়ম বা রুলস নাই, আপনি রাত ২ টার সময় ও কাজ করতে পারবেন, আবার সকাল ৯ টার সময়ও কাজ করতে পারবেন।
ফ্রিল্যান্সিং কীভাবে শুরু করবেন?
ফ্রিল্যান্সিং শুরু করার আগে অব্যশই আপনাকে কিছু শিখতে হবে। এবং ঐ জিনিস শিখেই আপনাকে ঐ জিনিস নিয়েই ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে হবে। এখন প্রশ্ন হবে কি শিখবেন? কি শিখবেন সেটা সম্পুর্ন আপনার উপর নির্ভর করবে, কারণ আপনি আপনার মনকে প্রশ্ন করুন ” কোন জিনিস আপনি বেশি জানেন বা পারবেন? মন যেটা উত্তর দিবে সেটাই শিখা শুরু করে দিন” কারণ যে কোন টপিক নিয়েই ফ্রিল্যান্সিং শুরু করা যায়। আপনি যদি ভালো গান গাইতে জানেন সেটা দিয়ে ও কিন্তু ফ্রিল্যান্সিং কর‍তে পারবেন, আপনি যদি ভালো ফটো তুলতে পারেন সেটা বিক্রি করে ও ইনকাম করতে পারবেন, আবার যদি আপনি ভালো ইংলিশ জানেন তাহলে ইংলিশ লিখেও শুরু করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং শুরুর আগে অবশ্যই  ভালো স্কিল তৈরি করে নিতে হবে, এখন আবার প্রশ্ন হবে কি নিয়ে স্কিল তৈরি করবেন? তো চলুন দেখাই কি কি জিনিস নিয়ে আপনি আসলেই ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন বা শিখবেন।
বর্তমানে সব চেয়ে জনপ্রিয় কিছু ক্যাটাগরি হচ্ছে
  • গ্রাফিক্স ডিজাইন
  • ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভলেপমেন্ট
  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • লেখালিখি এবং ট্রান্সলেটিং
  • প্রোগ্রামিং
  • ভিডিও এডিটিং এবং মোশন গ্রাফিক্স
  • এস ই ও
উপরে যেই ক্যাটাগরির নাম বললাম এই ক্যটাগরির মধ্যে রয়েছে আরো অনেক অনেক সাব ক্যাটাগরি। চলুন একটু গভীরে আলোচনা করি। উপরের ছবিটা লক্ষ্য করুন, এখানে একটি জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসের দৃশ্য। এখানে গ্রাফিক্স ডিজাইন বিভাগের সাথে আরো কত ক্যাটাগরি আছে দেখছেন? আপনি যে কোন ক্যাটাগরির কাজ শিখে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন।

এখন ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভেতর কত কিছু আছে একটু লক্ষ্য করুন

এইরকম শত শত বিভাগ আছে যেগুলা শিখে আপনি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারবেন। এখন সবার প্রশ্ন হবে কি শিখবো? কোনটা ভালো হবে? দেখুন এখানে যত বিভাগ দেখালাম সব গুলাতেই কিন্তু কাজ আছে, যে যেখানে পছন্দ সে সেখানে কাজ করে, আমার হয়তো মার্কেটিং পছন্দ , আরেকজনের গ্রাফিক্স ডিজাইন। সুতরাং কারো সাথে কারো পছন্দ মিলবে না। কি শিখবেন সেটা সম্পুর্ন আপনার উপর নির্ভর করবে। আপনি আবার আপনার মনকে প্রশ্ন করুন। মন যেটা বলবে সেটা শিখা শুরু করুন। ধরে নিলাম আপনি কি শিখবেন ঠিক করে ফেলেছেন।
এখন আসুন আলোচনা করি কীভাবে শিখবেন?
এখন ডিজিটাল দুনিয়া, আপনি চাইলে ঘরে বসে যে কোন কিছু শিখতে পারেন, সুতরাং শিখার জন্য গুগল আর ইউটিউব ব্যবহার করুন। আপনি গুগলে গিয়ে সার্চ করতে পারেন ‘ how to learn graphic design ” আপনি কিন্তু এই কিওয়ার্ডটি সার্চ করার পর হাজার হাজার রিসোর্চ পেয়ে যাবেন। যদি আপনি গুগল থেকে শিখতে না পারেন তাহলে আপনাদের জন্য আমাদের সফল ফ্রিলান্সারে কিছু টপ টপিকের উপর গাইডলাইন আছে। দেখে আসতে পারেন। আপনার শিখা শেষ হয়ে গেছে, এখন প্রশ্ন হবে কোথায় কাজ করবেন? দেখুন ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য অনেক জনপ্রিয় মার্কেট আছে, একেকটি মার্কেটের সিস্টেম একেক রকম।
টপ কিছু ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট হচ্ছে
  1. ফাইভার
  2. আপওয়ার্ক
  3. ফ্রিল্যান্সার
  4. গুরু
  5. ৯৯ ডিজাইন
  6. এনভান্টো মার্কেট
  7. এসইও ক্লার্ক
  8. টপাল
উপরের এই মার্কেট নিয়ে কিন্তু আমাদের গাইডলাইন রয়েছে, পড়ে আসুন

কীভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইনার হবেন? সম্পুর্ন গাইডলাইন

কীভাবে এফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করবেন ?
এখন আপনি কাজ শুরু করে দিলেন, প্রশ্ন হবে টাকা কীভাবে তুলবেন? আপনি যদি টাকা ইনকাম করা শুরু করে ফেলেন তাহলে যে কোন ভাবে টাকা তুলতে পারবেন। আপনি পেপাল দিয়ে অনাহাসে যে কোন মার্কেট থেকে টাকা তুলতে পারবেন, যদি ও বাংলাদেশে পেপাল নাই, কিন্তু সমস্যা নাই, আপনি পেনিওর দিয়ে ও টাকা আনতে পারবেন। কীভাবে পেনিওয়রের একাউন্ট খুলবেন পড়ে আসুন। Written By: Ibrahim Khalil

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

It is main inner container footer text